মঙ্গলবার   ২০ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৫ ১৪২৬   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

২২৬

হরেক রকম মগ

প্রকাশিত: ৫ জানুয়ারি ২০১৯  

সকালে ঘুম থেকে উঠেই এক মগ কফি না হলে অনেকের চলেই না। এই শীতে আবার অনেকের বিকেলটাও জমে ওঠে কফির মগে চুমুক দিয়ে। শুধু কি তাই, অফিসের কলিগ বা বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা জমিয়ে তুলতে হাতে কফির বিকল্প নেই। তবে এসব আনন্দময় সময়কে আরো আনন্দে ভরিয়ে তুলতে বা কফির আড্ডার নান্দনিকতা বাড়াতে পারে একটি সুন্দর মগ।

মগের ধরন

বাজারে বিভিন্ন ধরনের কফির মগ পাওয়া যায়। এসব মগের গায়ে চমৎকার সব আল্পনার কাজ করা থাকে। কিছু মগে আবার বিভিন্ন শুভেচ্ছা লেখা। কিছুতে পাবেন ব্র্যান্ডের লোগো দিয়ে চমৎকার ডিজাইন। অধিকাংশ মগই সিরামিক দিয়ে বানানো। সিরামিক ছাড়াও কাচ, অ্যালুমিনিয়াম, স্টিলের মগও পাবেন। আকারে আছে নানা ধরনের বৈচিত্র্য। কিছু ঢাকনাযুক্ত কফি মগ আছে, যাতে দীর্ঘক্ষণ কফি গরম থাকে। শিশুদের জন্যও বিভিন্ন ধরনের মগ পাওয়া যায় বাজারে। এসব মগের গায়ে মিকি মাউস, টম অ্যান্ড জেরি, সিসিমপুরসহ বিভিন্ন কার্টুন চরিত্রের ছবি থাকে।

কোথায় পাবেন: সিরামিক পণ্যের দোকানে নানা ধরনের কফিমগ পাবেন। এ ছাড়া ফ্যাশন হাউস নিত্য উপহার, রং, সাদাকালো, আড়ং, কে-ক্রাফট ও অঞ্জন’সে বিভিন্ন ডিজাইনের মগ পাবেন। রাজধানীর নিউমার্কেট, কাঁটাবন মার্কেট, এলিফ্যান্ট রোড, গুলশানের ডিসিসি মার্কেটসহ বিভিন্ন মার্কেটেও পাওয়া যায় কফিমগ। ।

দাম: সিরামিকের কফিমগ পাওয়া যাবে ১২০ থেকে শুরু করে এক হাজার টাকার মধ্যে। কাচ ও স্টিলের তৈরি মগগুলো পাবেন ১০০ থেকে শুরু করে ৪০০ টাকার মধ্যে।

নিজের মতো মগ সাজান

উপহার দেয়ার ক্ষেত্রে নিজের মতো করে সাজিয়ে নিতে পারেন পছন্দের মগটি। একটু বৈচিত্র আনতে চাইলে বিশেষ নকশায় সাজাতে পারেন। যেমন, যাকে গিফট দেবেন তার ছবি প্রিন্ট করে নিতে পারেন মগের উপর। কিংবা থাকতে পারে কোন পছন্দের কোন কথা। আবার কিছু মগ দেখলে অবাক হবেন, কারণ এতে কিছুই নেই। কিন্তু যেই না গরম পানি বা গরম চা কফি ঢাললেন অমনি দেখা যাবে এক মজার ম্যাজিক। গরম কিছু পরার পর পরই সেখানে ফুটে উঠবে প্রিন্ট করা ছবি। সেটা হতে পারে পছন্দের মানুষের, জায়গার বা কোন জিনিসের।

নিজে নকশা করতে চাইলে

মগে প্রিন্ট বা ম্যাজিক প্রিন্ট করাতে পারেন খুব সহজে। তার জন্য প্রথমে নিতে হবে পছন্দসই একটি মগ। তারপর নিতে হবে একটি ছবি। হার্ড কপি বা সফট কপি যাই হোক, কোনটাতেই অসুবিধা নেই। এবারে বাড়ির আশেপাশে বড় কোন স্টুডিও বা প্রিন্টিং প্রেস আছে কিনা খুঁজে নিন। হাজির হয়ে যান জিনিস নিয়ে। বাকি কাজ তারাই করে দিবে। তবে তার জন্য খরচ হবে ৩০০ থেকে ৬০০ টাকা। অবশ্য কোয়ালিটি ভেদে দামের কম বেশি হতে পারে। তাছাড়া আজকাল অনলাইনেও এসব মগের অর্ডার নেয়া হয়।

দৈনিক যশোর
দৈনিক যশোর