সোমবার   ২৭ মে ২০১৯   জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৬   ২২ রমজান ১৪৪০

৬২

শীঘ্রই দেশে ফিরছেন সিমলা

প্রকাশিত: ১৩ মার্চ ২০১৯  

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ী অভিনেত্রী সিমলার অনেকদিন কোন খবরে না থাকলেও গেল কয়েকদিন আগে বিমান ছিনতাই চেষ্টার ঘটনায় আলোচনায় আসেন। কারণ  বিমান ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত সেই যুবক পলাশের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল সিমলার। তবে সে সময়ে তিনি জানান তাদের সংসার বিচ্ছেদে গড়িয়েছে।

সিমলা কোথায় আছেন সে খবরও ছিলো অনেকের অজানা। এই ঘটনার পর জানা যায় সিমলা মুম্বাইয়ের মিরা রোডে বসবাস করছেন। এসব এখন সবার জানা। এবার সিমলা জানিয়েছেন নতুন খবর। আর সেটি হলো আগামী মাসের শুরুর দিকেই ঢাকায় আসছেন তিনি। এসেই নতুন একটি ছবির কাজ শুরু করবেন। 

এ বিষয়ে সিমলা বলেন, মুম্বাইয়ে 'সফর' নামে একটি হিন্দি ছবির কাজ করছি। এ ছবির কাজ প্রায় শেষ। কিছুদিন আগে ডাবিংও শেষ করেছি। এখন ফটোশুটে অংশ নেব। এরপর দেশে ফিরব। দেশের কয়েকটি ছবিতে কাজ করার প্রস্তাব পেয়েছি। ঢাকায় ফিরে তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবো।

এদিকে, বাংলাদেশে সবশেষ ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ ছবিতে কাজ করেন ‘ম্যাডাম ফুলি’ খ্যাত এ নায়িকা। ছবিটি পরিচালনা করেন রুবেল আনুশ। ছবিতে আরো অভিনয় করেন মামুন, আবুল হায়াত, পুলক, বাপ্পী, লাবণী, সাদিয়া, আলিফ, মুসা, টুটুল চৌধুরী, আফরিন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত,  সিমলা ১৯৯৯ সালে শহীদুল ইসলাম খোকন পরিচালিত ম্যাডাম ফুলি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রাঙ্গনে প্রবেশ করেন। এই চলচ্চিত্রে সিমলা ও ফুলি দুটি চরিত্রে অভিনয় করে তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। তিনিই প্রথম অভিনেত্রী যিনি তার অভিষেক চলচ্চিত্রেই শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

এছাড়াও ২০০৯ সালে তিনি সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালিত গঙ্গাযাত্রা চলচ্চিত্রে ফেরদৌস আহমেদ ও সাদিকা পারভিন পপির সঙ্গে পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করেন। এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রীর জন্য বাচসাস পুরস্কার লাভ করেন।

দৈনিক যশোর
দৈনিক যশোর
এই বিভাগের আরো খবর