মঙ্গলবার   ২০ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৫ ১৪২৬   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

৪৯৫

যশোরের নকশী কাঁথা

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০১৮  

নকশী কাঁথার কথা মনে পড়লেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে একটি নারীর অবয়ব। হাতে তার সুঁই সুতা। যে কিনা আপন মনে সেলাই করছে। এমন চিত্র দেশের সর্বত্র এখন বিরল। তবুও যশোরের বিভিন্ন এলাকায় এখনো চোখে পড়ে দূলর্ভ চিত্র।

শুধু সাময়িক অর্থনৈতিক মুক্তি নয়, এই শিল্পের মাধ্যমে অনেক পরিবার জীবিকা নির্বাহ করছে। পরিসংখ্যান বলে যশোরের প্রায় ৩শ পরিবার এর সঙ্গে জড়িত।

২০ গজের একটা নকশী কাঁথা তৈরিতে ২০ দিন থেকে ১ মাস লেগে যায়। কাঁথা প্রতি মজুরি পাওয়া যায় হাজার দু’য়েক টাকা। শুধু দেশীয় প্রতিষ্ঠানই নয়, এর চাহিদা রয়েছে ইউরোপ-আমেরিকা পর্যন্ত। সেখানে বিক্রয় হয় চড়া মূল্যে। সঙ্গে পৌছে যায় দেশীয় ঐতিহ্য, যশোরের বুনন শিল্প। স্থানীয় বাজারে এই কাঁথা বিক্রয় হয় চার থেকে পাঁচ হাজার টাকায়।

নকশী কাঁথার গতরজুড়ে ফুটে ওঠে হরেক রঙ্গের ফুল, পাখি, সাম্পান, হাতি, ঘোরা, বর-বধূ, পালকি সহ বাংলার ইতিহাস ও  ঐতিহ্যের নানা অনুষঙ্গ।  প্রায় সাতশ বছর ধরে এই অঞ্চলের মানুষ পর্যায়ক্রমে নকশী কাঁথার সঙ্গে  জড়িত। এতে শুধু খ্যাতি অর্জনই হয়নি বরং সমৃদ্ধ হয়েছে আমাদের বস্ত্রশিল্পকে।

দৈনিক যশোর
দৈনিক যশোর
এই বিভাগের আরো খবর